Tuesday, August 3, 2021

হাসপাতালে করোনা রোগীর চাপ বেড়ে যাওয়ায় চিকিৎসা সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছে ডাক্তাররা

জুবায়ের খন্দকার, ময়মনসিংহ জেলা প্রতিনিধি।।

istahar news pic

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে রোগীদের অতিরিক্ত চাপ বেড়ে যাওয়ায় সেখানকার ডাক্তারগণ রিতিমত হিমশিম খাচ্ছে। নির্ধারিত বেড়ের চাইতে দ্বিগুণ রোগী হওয়ায় অনেক রোগী হাসপাতালের মেঝেতেই নিজেদের বাড়ি থেকে আনা বিছানা পেতেই চিকিৎসা সেবা নিচ্ছেন।

 

৩রা আগষ্ট মঙ্গলবার গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে ব্রিফকালে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিন ইউনিটের কনসালটেন্ট ও করোনা ইউনিটের মুখপাত্র ডাঃ মোঃ মহিউদ্দিন খান মুন জানালেন-গত ২৪ ঘন্টায় ময়মনসিংহ জেলা এবং জেলার বাইরের করোনায় আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন মৃত্যু ১৭ জন। এদের মধ্যে ৬ জন করোনা আক্রান্ত হয়ে এবং ১১ জন করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। আর গত ২৪ ঘন্টায় ময়মনসিংহ জেলায় ৪৪৮ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে এবং আরো মারা গেছেন অন্তত ১০জন।

 

করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন যারা- ময়মনসিংহ সদর উপজেলার শিলা সরকার (৪০),  ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার আব্দুল কাইয়ুম (৬০), নেত্রকোনা সদর উপজেলার বেদেনা (৬৫), হানিফা (৬৭), দিনাজপুর জেলার ফুলবাড়িয়া উপজেলার শামসুন্নাহার (৬৮) এবং নরসিংদী জেলার আব্দুল মোতালেব (৬১)।

 

করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেলেন যারা-ময়মনসিংহ সদর উপজেলার কেওটখালী এলাকার  মুর্শিদা (৪০), হোসনে আরা (৬৫), মোসলেম উদ্দিন (৬০), শামসুদ্দিন (৭৫), ভালুকা উপজেলার রওশন আরা (৩৭), তারাকান্দা উপজেলার জেবুন্নাহার (৫০), নান্দাইল উপজেলার সুলতান উদ্দিন (৬২), ধুবাউরা উপজেলার সাহের বানু (৭০), নেত্রকোনা সদর উপজেলার আদম আলি (৭০),  টাংগাইল সদর উপজেলার জ্যোৎস্না (৭০) এবং ঘাটাইল উপজেলার জোবেদ আলি (৭৫)।

 

বর্তমানে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে রোগী ভর্তি আছেন ৫৫১ জন এরমধ্যে আইসিইউতে ভর্তি আছেন ২২জন।

 

গতকাল সোমবার রাতে ময়মনসিংহ সিভিল সার্জন অফিস থেকে প্রাপ্ত সর্বশেষ করোনা টেষ্টের প্রতিবেদন অনুযায়ী জানা যায় যে, গত ২৪ ঘন্টায় র‌্যাপিড এন্টিজেন টেষ্টে ২৭৪ জন এবং  আরটিপিসিআর টেষ্টে ১৭৪ জন এই ৪৪৮ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে ময়মনসিংহ সদর উপজেলায় ২২৪ জন, মুক্তাগাছা উপজেলায় ৫১ জন, ত্রিশাল উপজেলায় ২০ জন, ভালুকা উপজেলায় ৩৫ জন, ফুলপুর উপজেলায় ৩৩ জন, তারাকান্দা উপজেলায়  ৭ জন, গৌরীপুর উপজেলায় ১৮ জন, নান্দাইল উপজেলায় ১০ জন, ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলায় ৫ জন, হালুয়াঘাট উপজেলায় ১৬ জন, ধোবাউড়া উপজেলায় ৭ জন, ফুলবাড়িয়ায় ১০ জন এবং গফরগাঁও উপজেলায় ১২ জন।

 

 

 

Previous Post
Next Post
Related Posts

0 comments: