Tuesday, August 3, 2021

করোনাভাইরাস লকডাউন: বাংলাদেশে বিধিনিষেধ আরও পাঁচদিন বাড়ছে

ইস্তাহার নিউজ ডেস্ক।।

istahar news desk

বাংলাদেশে চলমান লকডাউন বা বিধিনিষেধের সময় আরও পাঁচদিন, অর্থাৎ ১০ই অগাস্ট পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

মঙ্গলবার আন্ত:মন্ত্রণালয়ের এক বৈঠকের পর মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক এই সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছেন।

তিনি বলেছেন, ১১ই অগাস্ট থেকে দোকানপাট, অফিস, ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠান খুলবে। সেই সময় থেকে শর্ত সাপেক্ষে যানবাহন চলাচলও করবে।

১১ই অগাস্ট থেকে বিধিনিষেধ শিথিল থাকবে, তবে ১৮ বছরের বেশি বয়সীরা টিকা নেয়া ছাড়া রাস্তায় বের হতে পারবে না।

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী মি: হক প্রেস ব্রিফিংয়ে উল্লেখ করেছেন, কেউ টিকা না নিয়ে বের হলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

করোনাভাইরাস পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে তারা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানানো হয়েছে।

চলমান লকডাউনের মেয়াদ ছিল ৫ই অগাস্ট মধ্যরাত পর্যন্ত। এখন সেই লকডাউনের সময় ১০ই অগাস্ট পর্যন্ত বাড়ানো হল।

১১ অগাস্ট থেকে দোকানপাট, অফিস খোলা, যানবাহন চলবে

ন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, ১১ই অগাস্ট থেকে আমরা দোকানপাট, অফিস খুলে দিচ্ছি। সব যানবাহন চলবে।

”তবে আমরা স্থানীয় প্রশাসনকে অনুরোধ করবো, যানবাহন যেন বাইরোটেশন (পালাক্রমে) চলে। শ্রমিক নেতা, পরিবহন নেতা ও মালিকের সঙ্গে আলোচনা করে যেন সীমিত আকারে চলে, তারা সেরকম ব্যবস্থা তারা গ্রহণ করবেন।”

ভ্যাকসিন ছাড়া কেউ চলাচল করতে পারবে না, কর্মস্থলে আসতে পারবে না

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, ১১ই অগাস্ট থেকে দোকানপাট-অফিস খুললেও, ভ্যাকসিন গ্রহণ না করে কেউ কর্মস্থলে আসতে পারবে না। যারা দোকানের কর্মী, শ্রমজীবী মানুষ, যানবাহনের কর্মী, তাদের ভ্যাকসিন নেয়ার সনদ থাকতে হবে।

৭ অগাস্ট থেকে ১২ অগাস্ট পর্যন্ত দেশব্যাপী যে টিকার ক্যাম্পেইন চালানো হবে, সেখানে শ্রমজীবী মানুষদের টিকা নিতে অগ্রাধিকার দেয়া হবে বলে তিনি জানান।

মন্ত্রী বলেছেন, এরপর বিধিনিষেধ শিথিল থাকলেও ১৮ বছরের বেশি কেউ টিকা না নিয়ে রাস্তায় বের হতে পারবেন না। হেটে হোক অথবা যেকোনো বাহনেই হোক, কেউ বের হলে তার বিরুদ্ধে শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসাবে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

স্বাস্থ্যবিধির আইন না মানলে সরকার প্রয়োজনে অধ্যাদেশ জারি করেও শাস্তির ব্যবস্থা করতে পারে বলে তিনি আভাস দেন।

অর্থনীতি সচল রাখতে ইতোমধ্যেই রপ্তানিমুখী শিল্প কলকারখানা খুলে দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবারের সভায় অন্যান্য শিল্প করখানাও খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে মন্ত্রী জানান।

স্বাস্থ্যবিধি মানতে মানুষকে আগ্রহী করতে প্রচারণা চালানো হবে

প্রেস বিফ্রিংয়ে মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেন, সভায় আলোচনা হয়েছে যে, শুধুমাত্র আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দিয়ে মানুষকে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলতে বাধ্য করা সম্ভব না।

”এজন্য সবাইকে আগ্রহী করতে হবে। সেই মোটিভেশনের জন্য গ্রামে-গ্রামে, ওয়ার্ডে-ওয়ার্ডে সভা করা হবে। জনপ্রতিনিধিরা সেইসব সভায় অংশ নেবেন।” তিনি বলছেন।

 

সুত্রঃ https://www.bbc.com/bengali/news-58070311

Previous Post
Next Post
Related Posts

0 comments: